শিরোনাম

লুসি হল্টকে স্থায়ী নাগরিকত্বের সনদ দিলেন প্রধানমন্ত্রী

সর্বশেষ আপডেটঃ ১১:৩৯:৩৩ অপরাহ্ণ - ৩১ মার্চ ২০১৮ | ২৮৩

নিজস্ব প্রতিবেদক : মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় জীবনের মায়া ত্যাগ করে যুদ্ধাহত ব্যক্তিদের সেবাদানকারী যুক্তরাজ্যের লুসি হেলেন ফ্রান্সিস হল্টের হাতে বাংলাদেশের নাগরিকত্ব দেওয়া হয়েছে।
বরিশালে বসবাসরত বাংলাদেশপ্রেমী লুসি হল্টের হাতে আজ শনিবার বিকালে গণভবনে বাংলাদেশের স্থায়ী নাগরিকত্বের সনদটি তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় জাতির জনকের ছোট মেয়ে শেখ রেহানা এবং শেখ হাসিনার মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ হোসেনও উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে গত ফেব্রুয়ারি সচিবালয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয়ের সভায় তাকে বাংলাদেশের নাগরিকত্ব দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এর আগে তাকে বিনা ফিতে ১৫ বছরের ভিসা দেওয়া হয়। যা গত ৮ ফেব্রুয়ারি বরিশাল নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যানে আয়োজিত জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লুসির হাতে তুলে দেন।
উল্লেখ্য, লুসি হেলেন ফ্রান্সিস হল্ট ১৯৩০ সালের ১৬ ডিসেম্বর ইংল্যান্ডের সেন্ট হেলেন শহরে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৬০ সালে বরিশালের অক্সফোর্ড মিশন হাসপাতালের সেবায়েত হিসেবে যোগ দেন তিনি। অক্সফোর্ড মিশন স্কুলে বিনা বেতনে তিনি পাঠদান করেন।
১৯৭১ সালে যুদ্ধের সময় তিনি যশোর ক্যাথলিক চার্চে কর্মরত ছিলেন। যুদ্ধের সময় চার্চটি বন্ধ করে দেওয়ায় নিজের জীবন বাজি রেখে কাছের ফাতেমা হাসপাতালে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের সেবা-শুশ্রুষা করেছেন।
এছাড়া যশোর, খুলনা, নওগা, ঢাকা ও গোপালগঞ্জের আর্থিক অস্বচ্ছল ও দুস্থদের পাঠদান ও সেবা করেছেন তিনি।
২০০৪ সালে তিনি অবসর নেওয়ার পরও বরিশাল অক্সফোর্ড মিশনে মানসিক বিকাশ ও ইংরেজি শিক্ষায় নিয়োজিত আছেন। এ দেশকে ভালবেসে ৫৮ বছর ধরে রয়ে গেছেন লুসি। পরিবারের অন্য সদস্যরা ব্রিটেনে থাকলেও আমৃত্যু বাংলাদেশে থেকে যাওয়ার ইচ্ছ প্রকাশ করেছেন তিনি।

সর্বশেষ
%d bloggers like this: