শিরোনাম

রমজানে ইফতার-তারাবি ও সেহরির সময় লোডশেডিং হবে না

সর্বশেষ আপডেটঃ ১০:০৯:১৩ অপরাহ্ণ - ২৭ এপ্রিল ২০১৭ | ৩৮৩

বিদ্যুৎ সচিব ড. আহমদ কায়কাউস বলেছেন, রমজানে ইফতার-তারাবি ও সেহরির সময় লোডশেডিং থাকবে না। লোডশেডিং করতে হলে আগে থেকেই সংশ্লিষ্টদের জানাতে হবে।

বৃহস্পতিবার আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় চলতি গ্রীষ্ম মৌসুমে ও আসন্ন রমজান মাসে বিদ্যুৎ সরবরাহ পরিস্থিতির সার্বিক বিষয়ে আলোচনাকালে তিনি এসব কথা বলেন।

সভায় আসন্ন রমজান মাসে দোকানপাট, মার্কেট ও বিপণী বিতানসমূহ খোলা রাখার বিষয়ে বিদ্যমান আইন অনুসরণ করা, পিক আওয়ারে রি-রোলিং মিল, ওয়েল্ডিং মেশিন, ওভেন, ইস্ত্রির দোকানসহ অধিক বিদ্যুৎ ব্যবহারকারী সরঞ্জামাদির ব্যবহার বন্ধ রাখা এবং মনিটরিং বাড়ানো, চলতি গ্রীষ্ম মৌসুমে ও আসন্ন রমজান মাসে বিদ্যুৎ সরবরাহ পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার জন্য গ্যাস সরবরাহ বৃদ্ধি করা, সুপার মার্কেট, পেট্রোল পাম্প ও সিএনজি গ্যাস স্টেশনে প্রয়োজনের অতিরিক্ত বাতি ব্যবহার বন্ধ করা, ইফতার ও তারাবির সময় এসি ব্যবহার বন্ধ রাখা, বিদ্যুতের অপচয় রোধে সিএফএল বাল্বের পরিবর্তে এলইডি বাল্ব প্রতিস্থাপনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা, পিক আওয়ারে চাহিদা অনুযায়ী বিদ্যুৎ উৎপাদনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা, বিকেল ৫টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত সিএনজি পাম্প বন্ধ রাখা ও অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন কার্যক্রম জোরদার করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

এ সময় সচিব বলেন, বিতরণ সংস্থাগুলো সবাই মিলে কমিটি করবে এবং বিদ্যুৎ লোডশেডিং সমহারে বণ্টন করা হবে।

সভায় পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসাইন, বিপিডিবির চেয়ারম্যান প্রকৌশলী খালেদ মাহমুদ, বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিনসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ