শিরোনাম

ময়মনসিংহে কাশেম হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবীতে বিক্ষোভ

সর্বশেষ আপডেটঃ ০৭:৪৫:১১ অপরাহ্ণ - ০৩ মে ২০১৮ | ২৯০

ময়মনসিংহে যুবলীগ নেতা আবুল কাশেম হত্যার প্রকৃত আসামীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবীতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করেছে চারাঞ্চলের এলাকাবাসী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ময়মনসিংহ প্রেসক্লাবের সামনে এই বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে কাশেমের পরিবার ও এলাকাবাসী।

ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধন চলাকালে এলাকাবাসীর পক্ষে বক্তব্য রাখেন আবু সাঈদ, নিহতের ভাই আবুল কালাম, হারুন-অর-রশিদ, জোবেদা খাতুন সাজেদুল ইসলাম, শাহ আলম বাদশা, গোলাম কিবরিয়া, ইব্রাহিম ভেন্ডার প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, কাশেম মারা যাওয়ার আগে পরিবারের কাছে হত্যাকারিদের নাম বলে যাওয়ার পরও পুলিশ প্রকৃত আসামিদের গ্রেপ্তার করছে না। আসামীরা বাদী পক্ষকে প্রতিনিয়ত প্রাণ নাশের হুমকি দিচ্ছে। তাই অবিলম্বে মূল হত্যাকারিদের গ্রেপ্তার করে সর্বোচ্চ বিচারের দাবি জানান বক্তারা।

পরে বিক্ষোদ্ধ এলাকাবাসী বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে ময়মনসিংহ রেঞ্জ ডিআইজি ও জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন।

উল্লেখ্য ০২-০৪-১৮ তারিখ সোমবার ময়মনসিংহ সদর উপজেলার চরাঞ্চল জয়বাংলা বাজার এলাকায় আবুল কাশেমকে (৩০) পিটিয়ে হত্যা করা হয়। সে সময় নিহতের ভাগিনা আরিফ অভিযোগ করে বলেন, দুই দিন আগে চর সিরতা ইউনিয়নের চর ভবানিপুরের কড়ইতলা এলাকায় ভাড়ায় চালিত দুই মোটরসাইকেলের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় অপর মটরসাইকেল আরোহী আলমগীর ও টিটু নামে দুই যুবলীগকর্মী ভাড়ায় চালিত মটরসাইকেল ড্রাইভারকে মারতে গেলে কাশেম বাধা দিলে তারা কাশেমকেও মারতে যায়।
এরই জের ধরে সোমবার দুপুরে কাশেম ঢাকা যাওয়ার পথে আলমগীর, টিটু, জনি, জামাল ও সিদ্দিকসহ আরও অজ্ঞাত কয়েকজন যুবলীগের নেতাকর্মীরা কাশেমের পথরোধ করে জয়বাংলা বাজারে ধরে নিয়ে যায় এবং বেধরক পিটায়। এক পর্যায়ে কাশেমের অবস্থা গুরতর দেখে তাকে ফেলে রেখে চলে যায়। তখন স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে মমেক হাসপাতালের ভর্তি করলে চিকিৎসকরা কাশেমকে মৃত ঘোষনা করেন।

সর্বশেষ
%d bloggers like this: