শিরোনাম

বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান পিছিয়ে ১৪৬তম

সর্বশেষ আপডেটঃ ১২:৪৫:২১ পূর্বাহ্ণ - ২৭ এপ্রিল ২০১৭ | ৪৫০

বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান এবার দুই ধাপ পিছিয়ে ১৪৬তম হয়েছে। ২০১৬ সালের সূচকে দুই ধাপ এগিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৪৪তম। এর আগে ২০১৫ ও ২০১৪ সালে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৪৬তম।

এই সূচক তৈরি করেছে বিশ্বজুড়ে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ে কাজ করা ফ্রান্সভিত্তিক সংগঠন রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস। বুধবার নিজস্ব ওয়েবসাইটে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেছে সংগঠনটি।

১৮০টি দেশের গণমাধ্যম পর্যালোচনা করে এই সূচক তৈরি করা হয়। এবার বিশ্বের প্রায় সব অঞ্চলেই সংবাদপত্রের স্বাধীনতা কমার বিষয়টি লক্ষ করা গেছে বলে দাবি করেছে সংগঠনটি। গণমাধ্যমের স্বাধীনতা লঙ্ঘনের পয়েন্ট হিসাব করে এই সূচক তৈরি করেছে তারা।

এবারের সূচকে বিশ্বব্যাপী সাংবাদিকরা হুমকির মুখে রয়েছে এবং গণমাধ্যমের স্বাধীনতা অত্যন্ত ভীতিজনক অবস্থায় রয়েছে এমন দেশের সংখ্যা বেড়েছে বলে উল্লেখ করা হয়। বিশ্বব্যাপী গণমাধ্যমের স্বাধীনতার ক্ষেত্রে বাধার মাত্রা ও ভিন্নতা তুলে ধরা হয়েছে প্রতিবেদনে।

এবার বাংলাদেশের মতো যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতের পরিস্থিতি খারাপ হয়েছে। এবার যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান ৪৩তম, যা গত বছর ছিল ৪১তম। ভারত এবার ১৩৬তম, ২০১৬ সালে ছিল ১৩৩তম। অথচ এর আগের বছর এই তিন দেশই উন্নতি করেছিল।

সূচকে এবার সবার ওপরে রয়েছে নরওয়ে। পরের অবস্থানে যথাক্রমে রয়েছে সুইডেন, ফিনল্যান্ড, ডেনমার্ক ও নেদারল্যান্ডস। আগের বছর সবার ওপরে ছিল ফিনল্যান্ড। সূচকে টানা ছয় বছর ধরেই প্রথম স্থানে ছিল দেশটি।

এবারের সূচকে বাংলাদেশের সার্বিক স্কোর ৪৩ দশমিক ৫২, যা গত বছর ছিল ৪৫ দশমিক ৯৪।

১৮০টি দেশের মধ্যে সূচকে সবচেয়ে নিচের দিকের দেশ উত্তর কোরিয়া। এর ঠিক ওপরেই রয়েছে ইরিত্রিয়া। তার ওপরে রয়েছে তুর্কমেনিস্তান ও সিরিয়া। চীনের অবস্থান ১৭৬তম।

বাংলাদেশের প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে নেপাল ১০৫, ভারত ১৩৬, থাইল্যান্ড ১৪২, ফিলিপাইন ১২৭ (আগে ছিল ১৩৮), শ্রীলঙ্কা ১৪১, আফগানিস্তান ১২০, মালয়েশিয়া ১৪৪ ও পাকিস্তান ১৩৯তম (আগের বছর ছিল ১৪৭তম) স্থানে রয়েছে। তবে পার্শ্ববর্তী দেশ মিয়ানমারের অবস্থানের উন্নতি হয়েছে। দেশটি ১২ ধাপ এগিয়ে ১৩১তম স্থানে অবস্থান করছে।

সূত্র: রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারসের ওয়েবসাইট।

এ বিভাগের জনপ্রিয় খবর

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর