শিরোনাম

প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লেখা শিশুকবির দায়িত্ব নিল স্বাস্থ্য বিভাগ

সর্বশেষ আপডেটঃ ০৭:১০:০৯ অপরাহ্ণ - ০৪ জুলাই ২০১৭ | ১৯৩

সুচিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে সাহায্য চেয়ে চিঠি লেখা শিশু কবি সাগর আকন্দের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসন। সাগরের চিকিৎসার জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দেয়া হয়েছে আর্থিক সহায়তা। তার চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছে কিশোরগঞ্জ জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে শিশুকবি হিসেবে পরিচিত সাগর আকন্দ। মাত্র ১২ বছর বয়সী সাগর তার কাঁচা হাতে সাজাচ্ছে কবিতার নানা পংক্তিমালা। এই বয়সেই তার মননে ঠাঁই করে নিয়েছে মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু আর দেশপ্রেম।

কিন্তু শরীরে বাসা বেঁধেছে নানা অসুখ। দিনমজুর বাবার সামর্থ্য নেই তার সুচিকিৎসার। টাকার অভাবে আটকে ছিল শিশু সাগর আকন্দের চিকিৎসা। উপায় না পেয়ে সুচিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে সাহায্য চেয়ে চিঠি পাঠিয়েছে সে। সেই শিশু সাগরের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসন। সাগরের চিকিৎসার জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দেয়া হয়েছে আর্থিক সহায়তা। এছাড়া তার চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছে কিশোরগঞ্জ জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

বিনা চিকিৎসায় ধুঁকে ধুঁকে মৃত্যুর দিকে এগিয়ে যাচ্ছিল প্রতিভাবান এই শিশুটি। তার চোখে-মুখে বাঁচার আকুলতা। পৃথিবীর রূপ-রস-গন্ধ উপভোগ করতে চায় সে। জেলা প্রশাসন এবং জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের সমন্বিত এই উদ্যোগের ফলে এখন সুস্থ হওয়ার স্বপ্ন দেখছে শিশুটি। এতে তার কচি মুখে ছড়িয়ে পড়েছে অপার আনন্দের ছটা।

শিশু সাগর আকন্দ হোসেনপুর উপজেলার শাহেদল ইউনিয়নের বীরপাইকশাহ গ্রামের মো. আবু শহিদ আকন্দের ছেলে। পিতা মো. আবু শহিদ আকন্দ রঙমিস্ত্রির কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন।

ছোটবেলাতেই কবিতা লেখায় হাতেখড়ি হয় গলাচিপা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র সাগর আকন্দের। তার কাঁচা হাতের উচ্ছ্বাসে ওঠে আসে মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু আর দেশপ্রেমের পংক্তিমালা। কিন্তু গত দুই বছর ধরে নানা শারীরিক সমস্যায় ভুগছিল সে। টাকার অভাবে সাগরকে ভালভাবে চিকিৎসা করাতে না পারায় দিন দিনই তার অবস্থার অবনতি হচ্ছিল। রোগশয্যায় থেকেও সে লিখে যাচ্ছে অবিরাম।

এ পরিস্থিতিতে তার পাশে এসে দাঁড়িয়েছে জেলা প্রশাসন। সোমবার তার সুচিকিৎসার জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পাঁচ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা দেয়া হয়। সকালে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) উপসচিব তরফদার মো. আক্তার জামীল শিশু সাগর ও তার বাবা মো. আবু শহিদ আকন্দের হাতে এই অর্থ সহায়তা তুলে দেন। এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এর কক্ষে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মো. সফিকুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ নিউজ এর প্রধান সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম এবং জেলা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

পরে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) উপসচিব তরফদার মো. আক্তার জামীল শিশু সাগরের চিকিৎসার ব্যাপারে সিভিল সার্জন ডা. মো. হাবিবুর রহমানের সঙ্গে কথা বলেন। সিভিল সার্জন ডা. মো. হাবিবুর রহমান সানন্দে শিশুটির চিকিৎসার দায়িত্ব নেয়ার কথা জানান।

শিশু সাগরকে নিয়ে তার বাবা মো. আবু শহিদ আকন্দ সিভিল সার্জন ডা. মো. হাবিবুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। এ সময় সিভিল সার্জন সাগরের চিকিৎসার জন্য একজন কনসালটেন্ট চিকিৎসককে দায়িত্ব দেন।

এ ব্যাপারে সিভিল সার্জন ঢাকাটাইমসকে বলেন, শিশু সাগরের মূত্রনালীতে সমস্যা রয়েছে। এজন্যে প্লাস্টিক সার্জারি লাগতে পারে। কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে এটি করা সম্ভব হলে আমরা করে দেব।

 

janatarpratidin.com / Md. Bappy / 04 July 2017

 

সর্বশেষ
%d bloggers like this: