শিরোনাম

‘নাজমুলে’র’ স্বদেশ প্রত্যাবর্তনকে ঘিরে তৃণমূল ছাত্রলীগের বাঁধভাঙ্গা উচ্ছ্বাস!

সর্বশেষ আপডেটঃ ০১:৩৯:২০ পূর্বাহ্ণ - ২৭ এপ্রিল ২০১৮ | ৮৫১

প্রায় সাড়ে ৩ বছর পর যুক্তরাজ্য থেকে দেশে ফিরেছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলম। ছাত্রলীগের রাজনীতি’র ‘প্রাণভোমরা’ হিসেবে পরিচিত সাবেক এ পরিশ্রমী ছাত্র নেতার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনকে ঘিরে আনন্দ উচ্ছ্বাসের সৃষ্টি হয়েছে ছাত্রলীগের তৃণমূল রাজনীতিতেও।

নাজমুলের নিজ জেলা জামালপুরের পাশের জেলা ময়মনসিংহেও বইতে শুরু করেছে বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাসের ঢেউ। আর এ উচ্ছ্বাস আনন্দের সূচনা হয়েছে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে নাজমুলের ‘শিষ্য’ হিসেবে পরিচিত ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রকিবুল ইসলাম রকিবের হাত ধরে।

বৃহস্পতিবার (২৬ এপ্রিল) দুপুরে নগরীর আনন্দ মোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সর্বস্তরের শিক্ষার্থীরা একীভূত হয়ে প্রিয় নেতার বাংলাদেশে প্রত্যাবর্তনকে স্মরণীয় করে রাখতে বিশাল আনন্দ শোভাযাত্রা ও সমাবেশ করেছে।

আনন্দমোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের আহবায়ক মাহমুদুল হাসান সবুজের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মযমনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রকিবুল ইসলাম রকিব।

যুগ্ম আহবায়ক শেখ সজলের সঞ্চালনায় এ সময় অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন যুগ্ম আহবায়ক ওয়াহিদুর রহমান সবুজ, রেদোয়ান হুদা আজাদ, জোনায়েদ হোসেন টিপু, মুক্তাগাছা ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম বিটুল প্রমুখ।

সমাবেশে সিদ্দিকী নাজমুল আলমকে ‘তৃণমূল রাজনীতির প্রাণ’ হিসেবে উল্লেখ করে ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রকিবুল ইসলাম রকিব বলেন, ‘ছাত্র রাজনীতির ‘আইডল’ হচ্ছেন সিদ্দিকী নাজমুল আলম। দীর্ঘদিন যুক্তরাজ্যে অবস্থান শেষে তিনি দেশে ফিরে আসায় গোটা দেশের ছাত্র সমাজের মতো ময়মনসিংহের ছাত্র সমাজও প্রাণের আবেগে উদ্দীপ্ত। অতীতের মতোই সামনের দিনগুলোতেও রাজপথে তাঁর কন্ঠের মাধুর্যতায় জ্বালাময়ী স্লোগান আর নিখাঁদ শব্দের গাঁথুনিতে প্রাঞ্জল বক্তব্য গোটা দেশের ছাত্র সমাজকে এক সুতোয় গাঁথবে।’

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু কন্যা, জননেত্রী শেখ হাসিনার চলার পথকে মসৃণ করতে সিদ্দিকী নাজমুলের অনুসারীরা জামায়াত-বিএনপি’র চক্রকে রাজপথেই পর্যদস্তু করে জীবনবাজি রাখতে প্রস্তুত রয়েছে।’

ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি রকিবুল ইসলাম রকিব সিদ্দিকী নাজমুলের হাত ধরেই ছাত্রলীগের নেতৃত্বে আসেন। প্রথম দফায় তিনি ছিলেন আনন্দমোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি।

এরপর দীর্ঘ প্রতীক্ষিত জেলা ছাত্রলীগের কাউন্সিলে তাকে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করে চমক সৃষ্টি করেন সিদ্দিকী নাজমুল আলম।

২০১৪ সালে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের ঐতিহাসিক ছাত্র সমাবেশে বিশাল শোডাউনের নেতৃত্ব দিয়ে রকিবের নেতৃত্বাধীন ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগ শ্রেষ্ঠ সংগঠনের স্বীকৃতি পায়। এরপর অপার সাংগঠনিক দক্ষতার স্বীকৃতি স্বরূপ তাকে জেলা ছাত্রলীগের পরবর্তী কমিটিতে সভাপতি’র দায়িত্ব দেয়া হয়।

সর্বশেষ
%d bloggers like this: