শিরোনাম

গফরগাঁওয়ে দুই হাজার যাত্রীর জন্য নেই ট্রেনের কোনো আসন

সর্বশেষ আপডেটঃ ০১:৪৭:৫৮ অপরাহ্ণ - ০১ মে ২০১৭ | ৩৯৯

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে চারটি মেইল ট্রেনের যাত্রী অন্তত দুই হাজার হলেও সেই যাত্রীদের জন্য নেই একটি আসনও। অথচ গফরগাঁও রেলস্টেশন থেকে প্রতিদিন সকাল থেকে রাত অবধি গফরগাঁওসহ ভালুকা, হোসেনপুর, নান্দাইল ও ত্রিশাল উপজেলার একাংশের কয়েক হাজার যাত্রী ট্রেনযোগে বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করে থাকেন।

গত বুধবার ২৬ এপ্রিল বেসরকারিভাবে চলাচলকারী বলাকা, জামালপুর কমিউটার, দেওয়ানগঞ্জ কমিউটার ও মহুয়া মেইল ট্রেনটির আপ-ডাউনে গফরগাঁওয়ের জন্য বরাদ্দকৃত ৪১৩ আসনের সবকটিই বাতিল করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এ অবস্থায় প্রতিদিন ওই চারটি ট্রেনযোগে গফরগাঁও থেকে যাতায়াতকারী হাজারো যাত্রী চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। ব্যাংক কর্মকর্তা জহিরুল ইসলাম শনিবার অভিযোগ করে বলেন, ভাই সকাল সাড়ে ৬টার দিকে স্ত্রী এবং দুই ভাগ্নে নিয়ে ময়মনসিংহ যাওয়ার জন্য গফরগাঁও রেলস্টেশনে আসি। এখানে এসে জানতে পারি এ ট্রেনসহ আরও তিনটি ট্রেনের আসন বাতিল করেছে কর্তৃপক্ষ। অথচ এসব ট্রেনের বরাদ্দকৃত আসনের চেয়ে ট্রেন আসার আগে তিনগুণ বেশি স্ট্যান্ডিং টিকিট বিক্রি হয়ে থাকে। টিকিট বিক্রির ক্ষেত্রে সব ট্রেনের একই অবস্থা। তারপরেও কেন হুট করে হাজার হাজার যাত্রীর কথা চিন্তা না করে আসন বাতিল করায় হতভম্ব তিনি। এসময় তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ট্রেনের আসন বাতিল করার পূর্বে কাউন্টারে টিকিট না পেলেও কালোবাজারিদের কাছ থেকে দুই-তিন গুণ বেশি দামে টিকিট কিনে হলেও সিটে বসে গন্তব্যে পৌঁছতে পারতাম। এখন বাধ্য হয়ে সকাল সাড়ে ৯টার তিস্তা এক্সপ্রেস ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করছি।

এদিকে পূর্বের বরাদ্দকৃত আসন ঠিক রাখা, ট্রেনের টিকিট কালোবাজারি বন্ধের দাবিতে গফরগাঁও মানবাধিকার কমিশনের ব্যানারে রেলস্টেশন চত্বরে গত শনিবার ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন করেন সর্বস্তরের জনতা। এ সময় মানবাধিকার কমিশন পৌর শাখার সভাপতি মীর জাহাঙ্গীর হোসেনের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন উপজেলা দুপ্রক সভাপতি ডা. কে এম এহছান, উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মজিবর রহমান, মানবাধিকার কমিশন উপজেলা শাখার সভাপতি আনোয়ার হোসেন, পৌর শাখার সভাপতি আ. হামিদ বাচ্চু, প্রভাষক গোলাম মো. ফারুকী, প্রভাষক আরশাদ আহমেদ, প্রভাষক মাহবুবুর রহমান, প্রভাষক সাব্বির কামাল, বাজার কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক মেহেদি হাসান বাবুল প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, গফরগাঁওয়ের জন্য চারটি ট্রেনের বরাদ্দকৃত যে ৪১৩টি আসন বাতিল করা হয়েছে শিগগির যদি সে আসনগুলো পুনরায় বরাদ্দ দেয়া না হয় তাহলে আগামী দিনে রেলপথ অবরোধ করা হবে।

এ ব্যাপারে গফরগাঁও রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার মুসলেম উদ্দিন ঢাকাটাইমসকে বলেন, হঠাৎ বিনা নোটিশে কী কারণে আসন বাতিল করা হয়েছে এ বিষয়ে আমি অবগত নই।

 

janatarpratidin.com /Md. Bappy /01 May 2017

এ বিভাগের জনপ্রিয় খবর

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর