শিরোনাম

ঈদযাত্রা নিশ্চিত করতে দায়িত্ব পালন করবে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী

সর্বশেষ আপডেটঃ ০৩:০৪:১৪ অপরাহ্ণ - ১১ জুন ২০১৮ | ৮৬৭

ঈদুল ফিতরে যাত্রীদের নির্বিঘ্নে ঈদযাত্রা নিশ্চিত করতে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে যানজট নিরসনে দায়িত্ব পালন করবে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। রোববার (১০ জুন) সেনাবাহিনীর একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা এই তথ্য নিশ্চিত করেন।দক্ষিণবঙ্গের ২১ জেলার প্রবেশদ্বার শিমুলিয়া ঘাটে প্রবেশের জন্য একমাত্র মাধ্যম এই মহাসড়ক। তবে চার লেনের কাজের জন্য রাস্তা সংকুচিত এবং বিভিন্ন স্থানে বিকল্প পথের কারণে দুর্ভোগ পোহাতে হবে আশংকা করছেন সংস্লিষ্টরা।ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে চলাচলরত পরিবহন সূত্রে জানা যায়, মাওয়া চৌরাস্তা এলাকায় চার লেনের কাজের জন্য রাস্তা সংকুচিত করা হয়েছে। ফলে ধীর গতি নিয়ে চলছে গাড়িগুলো। এছাড়া ভারী যানবাহনগুলো চলাচলে জন্য যাত্রীবাহি যানবাহনগুলো স্বাভাবিক গতিতে চলতে পারছে না।মহাসড়কের বিভিন্ন অংশে ডাইভারশন মাধ্যমে বিকল্প পথের কারনে দীর্ঘ সময় নিয়ে গাড়িগুলো চলাচল করছে।সেনাবাহিনীর দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তার সূত্রে জানা যায়, মহাসড়কে নির্বিঘ্নে যাত্রীদের ঈদযাত্রা নিশ্চিত করতে ইতিমধ্যে মিটিং করা হয়েছে। এখানে যাত্রীদের ভোগান্তি কমাতে বেশকিছু সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। মহাসড়কে রাস্তার পাশের বাজার গুলো চিহ্নিত করা হয়েছে এবং মানুষ যাতে মহাসড়কে যান চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি না করতে পারে সেজন্য বাজারের পাশে সেনাসদস্যরা নজর রাখবে সেনাবাহিনী।ঢাকা-মহাসড়কের ৩৫ কিলোমিটার অংশে চার লেনের কাজের জন্য ভারী যানবাহনগুলো যাতে যাত্রীবাহি গাড়িগুলোর স্বাভাবিক চলাচল বিঘ্নিত করতে না পারে সেদিকে লক্ষ রাখা হবে। মহাসড়কের ঢাকার জুরাইনে অংশে দুইটি বিকল্প পথ করা হয়েছে যাতে ঈদে ঘরমুখো গাড়ির বাড়তি চাপ কমে যায়।মহাসড়কে দুর্ঘটনায় তাৎক্ষণিক সেবা ও যান চলাচল যাতে বিঘ্নিত না হয় তার জন্য সেনাবাহিনীর রেসকিও টীম গঠন করা হয়েছে। এছাড়া যানজট নিরসন করতে পুলিশ সদস্যদের পাশাপাশি বাংলাদেশ সেনাবাহিনী মাঠে থাকবে। শিমুলিয়া ঘাটগামী যাত্রীবাহি গাড়িগুলো যাতে নির্দিষ্ট সময়ে গৌন্তব্যে পৌঁছাতে পারে সে লক্ষে কাজ করা হবে।মাওয়া ট্রাফিক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ কর্মকর্তা মোঃ সিদ্দিকুর রহমান জানান, মাওয়া চৌরাস্তা এলাকায় ট্রাফিক পুলিশের বিশেষ নজড় থাকবে। মহাসড়কের কোথাও যাতে কোন যান চলাচলে বিঘ্ন না ঘটে তার জন্য পুলিশ সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবে। শিমুলিয়া ঘাটে নির্বিঘ্নে গাড়ি প্রবেশের জন্য ঈদ পূর্বে ব্যপক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়া মহাসড়কে ঈদ উপলক্ষে তিনদিন ট্রাক চলাচল করবে না

সর্বশেষ
%d bloggers like this: