শিরোনাম

অপরাধীকে অপরাধী এবং রাজনীতিকে রাজনীতি হিসাবে দেখা হবে

সর্বশেষ আপডেটঃ ০৬:১৭:০৩ অপরাহ্ণ - ১৮ আগস্ট ২০১৮ | ৫৫০

ময়মনসিংহের শান্তি-শৃংখলা অব্যাহত রাখার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে ময়মনসিংহে সদ্য যোগ দেওয়া পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন বলেন পুলিশ মানুষের আস্থার প্রতীক, বর্তমানে পুলিশের সক্ষমতা অনেক বেড়েছে, যে কোন অপরাধকে রাজনীতির দৃষ্টিতে নয় আইনের দৃষ্টিতে আর অপরাধীকে অপরাধী এবং রাজনীতিকে রাজনীতি হিসাবে দেখব।

জঙ্গিবাদ সারা পৃথিবী কাবু করলেও পুলিশ জীবন দিয়ে বাংলাদেশের জঙ্গি নেটওয়ার্ক ধবংশ করে দিতে স¶ম হয়েছে। তাই বাংলাদেশ পুলিশ জঙ্গি দমনে আজ সারা বিশ্বে রোল মডেল। যে কোন ধরনের অরাজকতা, সন্ত্রাস,মাদক, নারী নির্যাতন বাল্যবিবাহ ও জঙ্গি দমনে কঠোর অবস্থানে থাকবো, এ ব্যাপারে তাঁর নীতি হবে জিরো টলারেন্স।

কোন ধরনের অন্যায়ের কাছে মাতা নত করবেন না ময়মনসিংহে সদ্য যোগ দেওয়া এই পুলিশ সুপার। ময়মনসিংহের শান্তিকামী মানুষকে নিরাপদে এবং শান্তি-শৃংখলা অব্যাহত রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করে নতুন কর্মস্থলের শুর“তেই তিনি এসব বিষয়কে অগ্রাধিকার দেন।

পুলিশ সুপার কার্যালয়ের মিলনায়তনে শনিবার ময়মনসিংহে কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিকস মিডিয়ার প্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময়কালে পুলিশ সুপার এসব কথা বলেন। মতবিনিময় সভায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) শাহরিয়ার মোহাম্মদ মিয়াজী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) জয়িতা শিল্পী, ইনসার্ভিস ট্রেনিং সেন্টারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফালগুনী নন্দি, কোতোয়ালী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল আমিন, গৌরীপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাকের আহমেদ, ত্রিশাল সার্কেলের এএসপি রকিবুল ইসলাম, ফুলপুর সার্কেলের এএসপি আলমগীর, কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি মাহমুদুল ইসলাম, ট্রাফিক পুলিশ পরিদর্শক (প্রশাসন) আব্দুল কাদের খানসহ জেলার অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সদ্য যোগ দেওয়া পুলিশ সুপার মোঃ শাহ আবিদ হোসেন আরো বলেন, পুলিশ ও সাংবাদিক একে অপরের পরিপুরক। এই দুই শ্রেণী সমাজের বাইরের কেউ নয়। সহযোগীতার মন নিয়ে মানুষের নিরাপদ পরিবেশ তৈরী করতে হবে। যাতে সাধারণ মানুষ নিরাপদ পরিবেশ পায়, সাংবাদিকদের প্রয়োজনে তথ্য অধিকার আইন অনুযায়ী সকল তথ্য প্রদান করা হবে।

কোন ধরণের গুজবে কান না দিয়ে তথ্য যাচাই-বাচাই করে সংবাদ প্রকাশের আহবান জানিয়ে বলেন, যাতে একটি গুজব নতুন আর কোন ঘটনার সৃষ্টি না করে সে দিকে প্রত্যেকের খেয়াল রাখতে হবে। আমরা উন্নয়নশীল দেশে পা দিয়েছি, সঠিক আইন সম্পর্কে সকলকে অবহিত হতে হবে।

তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে কেউ মাদকের সাথে জড়িত হলে তাদের বির“দ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে, মাদক ও জঙ্গিমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠায় শিক্ষা নগরীর সকল প্রতিষ্ঠানে পুলিশের পক্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের এই বিষয়ে বির্তক প্রতিযোগিতার ব্যবস্থা করা হবে।

সর্বশেষ
%d bloggers like this: