শিরোনাম

“১৫৭, নেত্রকোণা-১,কলমাকান্দা-দুর্গাপুর” বাসীর প্রানের নেতা “মোস্তাক আহম্মেদ রূহি”

সর্বশেষ আপডেটঃ ০৩:১৪:২৪ পূর্বাহ্ণ - ২৯ জুলাই ২০১৮ | ২৩৩
১৫৭, নেত্রকোণা-১,”কলমাকান্দা-দুর্গাপুর”- 

চেষ্টা, সাধনা আর অধ্যবসায়ের এক অভুতপূর্ব সমন্বয় এবং জন্মগত প্রতিভা, কর্মদক্ষতা আর মানসিক দৃঢ়তায় আলোকিত তার এ কর্মযজ্ঞ।

মানুষের জীবনে কত ঘটনাই না ঘটে থাকে। এমনি এক সময় আসে অনেক মানুষের ভাবধাবার পরিবর্তন ঘটে।
ঠিক তেমনি শ্রম, মেধা আর মানবতা মানব চরিত্রের একটি মহৎ গুণ। আর এই তিনটি গুণেই পারে একজন ব্যক্তিত্বকে জনপ্রিয়তা লাভ করাতে। এমনিই একজন ব্যক্তিত্ব ছিলেন   কলমাকান্দা দুর্গাপুর আসনের সাবেক এমপি মোস্তাক আহম্মেদ রূহি। তিনি সাধারণ জনগণের সেবক হিসেবে ছিলেন এক উজ্জল নক্ষত্র।
মানুষ তখন অতিতের অনেক ঘটনা পিছু ফেলে জনগণের সেবক হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে শুরু করে নতুন পথ চলার। এমনি পথের একজন পথিক ছিলেন মোস্তাক আহম্মেদ রূহি। নিজের প্রতিভা দিয়ে জয় করতে পেরেছেন সাধারণ মানুষের হৃদয়।
তাই তিনি গত নবম সংসদীয় নির্বাচনে ৫৩,০০০ হাজার ভোটঅতিরিক্ত/ বাড়তি : পেয়ে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন। এলাকাবাসী বলছেন, মোস্তাক আহম্মেদ রূহির প্রতিভা ও কর্মদক্ষতা আমাদের অনুপ্রাণিত করেছে। ৭১ এর পর থেকে  যত এমপি এসেছেন তাদের মধ্যে একজন যোগ্য মোস্তাক আহম্মেদ রূহি ভাই। তিনি থাকাকালে মানুষজন শান্তিতে ছিল।
সে সময় কোন টেন্ডারবাজি, বালুরঘাট দখল, মারামারি, দাঙ্গা-হাঙ্গামা এসব কিছু ছিলনা। স্বাধীনতার পর থেকে রূহি ভাই যে কাজগুলো করে আসছেন অন্য কোন এমপি আজ অবধি করতে পারেননি। তাই এখনও তিনি জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন।
মোস্তাক আহম্মেদ রুহি বলেন, পরার্থে জীবন উৎসর্গ করার মাধ্যমে মানবজীবন সার্থকতায় উজ্জল হয়ে উঠে। তাই তিনি সকল স্বার্থ জলাঞ্জলি দিয়ে একনিষ্ঠ ভাবে সাধারণ জনগণের সেবক হিসেবে আজও কাজ করছেন। তার এ পথ চলাকে এলাকাবাসী মনে করেন কীর্তির মহিমায় নয়, আন্তরিকতার দিপ্ততায়, চেতনার বহ্নিমানতায়, সৃষ্টির উদ্দমতায় এক অফুরন্ত অনুপ্রেরণা  মোস্তাক আহম্মেদ রূহি।
সর্বশেষ