শিরোনাম

ময়মনসিংহে পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের ব্রহ্মপুত্র পাড়ে ব্যতিক্রমী উৎসব

সর্বশেষ আপডেটঃ ১০:২৫:০৬ অপরাহ্ণ - ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | ৭৩

পরিচ্ছন্নতা কর্মী, প্রতিটি বড় কিংবা ছোট শহর এলাকার পরিচ্ছন্নতা কাজের জন্য নিয়োজিত থাকে। জীবনের তাগিদে অবহেলা আর বঞ্চনা নিয়েই তারা পরিচ্ছন্নতা কাজ চালিয়ে যায়।

তেমনি প্রাচীন পৌরসভা থেকে সিটি করপোরেশন হওয়া ময়মনসিংহ শহরে কাজ করে প্রায় কয়েক’শ পরিচ্ছন্নতা কর্মী। রাতের আধারে কাজ করে একটি পরিচ্ছন্ন সকাল উপহার দেয় তারা। তবে সবসময় আড়ালে-অবহেলায় থেকে যাওয়া এসব পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের নিয়ে প্রথমবারের মত এক ব্যতিক্রমী আয়োজন করে পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বিডি ক্লিন ময়মনসিংহ।

দেশের সবত্র যখন বসন্ত বরণের পর ভালোবাসা উৎসব পালন হচ্ছে ঠিক সেই দিনটির পরের দিন ১৫ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের ২০৫ জন বিভিন্ন শ্রেণির পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের নিয়ে ব্রহ্মপুত্র নদের পাড়ে আনন্দ উৎসবের আয়োজন করে সংগঠনটি।

ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের সহযোগীতায় আনন্দ উৎসবে অংশ গ্রহন করে প্রায় তিনশতাধিক স্বেচ্ছাসেবী। কাক ডাকা ভোর থেকে সন্ধা পর্যন্ত চলে এ আনন্দ উৎসব।

পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের সাথে সকালের নাস্তার পর বিভিন্ন ধরনের খেলা-ধুলায় অংশ গ্রহন করে স্বেচ্ছাসেবীরা। এসময় অন্যরকম এক দৃশ্যের সূচনা হয়, আনন্দে আত্মহারা হয়ে আনন্দ ভাগাভাগি করে নেন স্বেচ্ছাসেবী ও পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা।

বিভিন্ন ধরনের আনন্দদায়ক খেলা ছাড়াও এসময় পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের জন্য আয়োজন করা হয়, নাগর দোলা, ফুচকা খাওয়া, সাপের খেলা, সহভাগিতা, নাচ-গান সহ বিভিন্ন আয়োজনের।

দুপুরের আগে সে আনন্দ আরো বাড়িয়ে দেন ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের প্রশাসক মো: ইকরামুল হক টিটু। প্রশাসকের উপস্থিতিতে পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা মেতে উঠেন আনন্দে।

এরপর একসাথে সিটি করপোরেশনের প্রশাসক, স্বেচ্ছাসেবী, আমন্ত্রিত অতিথী ও পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা দুপুরের খাবার গ্রহন করে।

দুপুর গড়িয়ে যখন বিকেল তখন পরিচ্ছন্নতা কর্মী ও স্বেচ্ছাসেবীদের যৌথ অংশগ্রহনে অনুষ্ঠিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। নাচ-গানে মেতে উঠেন এসময় তারা, সর্বশেষ সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন ওয়ার্ডের সেরা পরিচ্ছন্নতা কর্মী, সেরা স্বেচ্ছাসেবীদের পুরস্কিত করা হয়।

এমন আয়োজনে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা। তারা বলেন, আমরা সারাজীবন কাজ করে গেলাম, সবাই শুধু নাক ছিটকাল। কিন্তু এই প্রথম আমাদের নিয়ে এসব ছাত্ররা এমন আয়োজন করেছে।

অনুষ্ঠানের প্রধানঅতিথী সিটি করপোরেশনের প্রশাসক ইকরামুল টিটু তার বক্তব্যে বলেন, পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের নিয়ে এমন আয়োজন তাদের মনোবল বাড়িয়ে দিবে। মানুষের কাছে নোংরা হিসেবে পরিচিত শহর অচিরেই মডেল পরিচ্ছন্ন শহর হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হবে ইনশাআল্লাহ।

এসময় তিনি এমন আয়োজনের জন্য বিডি ক্লিন ময়মনসিংহকে ধন্যবাদ জানান।

ভিন্নধর্মী এ আয়োজন সম্পর্কে বিডি ক্লিন ময়মনসিংহের বিভাগীয় সমন্বয়ক এড. মতিউর রহমান ফয়সাল বলেন, ১৯৭১ সালে আমাদের দেশের বীরেরা যেমন জীবন বাজি রেখে যুদ্ধ করে দেশকে স্বাধীন করে গেছেন। আমরা সেই দেশটিকে পরিচ্ছন্ন হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করে যাচ্ছি।

তিনি বলেন, যারা এই পরিচ্ছন্নতার কাজে মুখ্য ভূমিকা পালন করেন তারা সবসময় আড়ালেই থেকে যান। মূলত তাদের মনোবল বাড়িয়ে তুলা ও উৎসাহ দেওয়ার জন্যেই এমন আয়োজন।

উল্লেখ্য, বিডি ক্লিনের আদলে গড়ে উঠা বিডি ক্লিন ময়মনসিংহ সংগঠনটি প্রায় দুই বছর যাবত শহরে পরিচ্ছন্নতার কাজ করে যাচ্ছে। যেখানে নিয়মিত পাঁচ শতাধিক স্বেচ্ছাসেবী পরিচ্ছন্নতা ও সচেতনতার কাজ করে যাচ্ছেন।

সর্বশেষ