শিরোনাম

“মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে সোচ্চার ইরানিরা”

সর্বশেষ আপডেটঃ ১০:০৪:১৭ পূর্বাহ্ণ - ০৫ নভেম্বর ২০১৮ | ১৫

ট্রাম্প প্রশাসনের সর্বাত্মক নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছে ইরানের জনগণ। রোববার (৪ নভেম্বর) রাজধানী তেহরানে হাজার হাজার মানুষ ইরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের আরোপিত সর্বশেষ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবি জানান। খবর আল-জাজিরা।

তেহরানে মার্কিন দূতাবাস দখলের ৩৯তম বার্ষিকীতে এই বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হলো। ১৯৭৯ সালের এই দিনে তেহরানে মার্কিন দূতাবাস দখল করে নিয়েছিল ইরানের বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা। দিনটি ইরানে ‘ছাত্র দিবস’ হিসেবে পালিত হয়ে থাকে।

বিক্ষোভকারীরা এসময় ‘আমেরিকার মৃত্যু’ বলে স্লোগান দিতে থাকেন। সবার হাতে ছিলো ব্যানার ও প্ল্যাকার্ড। সেসবে সাম্রাজ্যবাদীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন কথা লেখা ছিলো। এক পর্যায়ে বিক্ষোভকারীরা উত্তেজিত হয়ে আমেরিকা ও ইসরাইলের পতাকায় আগুন জ্বালিয়ে দেন।

প্রতিবাদ সমাবেশের ভাষণে ইরানের রেভ্যুলশনারি গার্ডের প্রধান মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আলি জাফরি বক্তৃতা রাখেন।

তিনি বলেন, আমেরিকা ও দেশটির অদ্ভুত প্রেসিডেন্টের উদ্দেশ্যে কিছু বলতে চাই। ইরানকে কখনো ভয় দেখিয়ো না। আমরা মরূদ্যানে তোমাদের সেনাদের ভয়ংকর সেই কান্না এখনো শুনতে পাই। সুতরাং আমাদের সামরিক শক্তির ভয় দেখিয়ো না।

উল্লেখ্য, সোমবার (৫ নভেম্বর) ইরানের ওপর সবচেয়ে কঠোর নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করবে যুক্তরাষ্ট্র। ইরানের জ্বালানি, জাহাজে পণ্য পরিবহণ ও ব্যাংক খাতকে লক্ষ্য করে এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। এছাড়া নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকবেন সাতশ ইরানের নাগরিক। এসব ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানগুলোর যুক্তরাষ্ট্রে থাকা সকল সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হবে।

এছাড়া, কোন দেশ যদি ইরানের সঙ্গে মার্কিন অনুমোদন ছাড়া ব্যবসা করে তাহলে তাদের ওপরও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে বলে হোয়াইট হাউজের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। তবে এরইমধ্যে রাশিয়ার জ্বালানিমন্ত্রী আলেকজান্ডার নোভাক ঘোষণা করেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করেই মস্কো ইরান থেকে তেল কিনবে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর