শিরোনাম

ভারতে চলন্ত গাড়িতে গণধর্ষণের পর রাস্তায় নিক্ষেপ

সর্বশেষ আপডেটঃ ০১:২৪:৫১ পূর্বাহ্ণ - ১৫ মে ২০১৭ | ২৭

আবারও সেই ভারতের দিল্লি। ২২ বছর বয়সী এক যুবতীকে তুলে নিয়ে চলন্ত গাড়িতে গণধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার ভোরের দিকে দিল্লির গুরগাঁও এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। তিন ধর্ষক গণধর্ষণ করার পর ভুক্তভোগীকে রাস্তায় ছুঁড়ে ফেলে পালিয়ে গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ধর্ষণের এই ঘটনাটি দিল্লিতে মেডিকেল ছাত্রী নির্ভয়ার লোমহর্ষক সেই গণধর্ষণ ও হত্যার কথা স্মরণ করিয়ে দেয়। চলতি মাসের শুরুর দিকে এ ঘটনায় মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত চার অপরাধীর সাজা বহাল রেখেছেন ভারতের সুপ্রিমকোর্ট।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়, ভুক্তভোগী নারীর বাড়ি সিকিমে। তার ওপর লোমহর্ষক আক্রমণের ঘটনা ঘটে রাত ২ টার দিকে। এসময় তিনি মধ্যদিল্লির কন্নট প্যালেস থেকে গুরগাঁওয়ের স্কেটর ১৭তে নিজ বাসাতে ফিরছিলেন।

পুলিশ জানায়, ভুক্তভোগী তার বাসার কাছাকাছি পৌঁছলে তিন ব্যক্তি তাকে একটি মারুতি সুইফট কারে টেনে তুলে নিয়ে যায়। পরে চলন্ত গাড়িতে তারা তাকে একে একে ধর্ষণ করে। এরপর যুবতীকে দক্ষিণ-পশ্চিম দিল্লির নাজফগড়ে গাড়ি থেকে রাস্তায় ছুঁড়ে ফেলে অভিযুক্তরা পালিয়ে যায়। পরে ওই যুবতী রাস্তা দিয়ে চলাচল করা কয়েকজনের সহায়তায় দিল্লি পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করেন।

পুলিশ এ ঘটনায় তিন জনের নামে একটি মামলা দায়ের করেছে।

এর আগে গত শুক্রবার রাতে রোহতাকে গণধর্ষণের পর নৃশংসভাবে খুন করা হয় এক তরুণীকে। রোহতকের এক ফাঁকা এলাকা থেকে তার ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। গণধর্ষণের পর তার পরিচয় গোপন রাখতে তরুণীর মাথার ওপর দিয়ে গাড়ি চালিয়ে দেয় অভিযুক্তরা। যৌনাঙ্গে ধারালো অস্ত্র ঢুকিয়ে দেওয়া হয়।

 

janatarpratidin.com / Md. Bappy / 15 May 2017

 

সর্বশেষ