শিরোনাম

বিয়েতে প্রেমিকের অসম্মতি, অভিমানে আত্মহত্যা

সর্বশেষ আপডেটঃ ০২:৪০:০১ অপরাহ্ণ - ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | ৪২

ময়মনসিংহের ত্রিশালে প্রেমিক বিয়েতে অসম্মতি জানালে অভিমান ও ক্ষোভে বিষপান করে আত্মহত্যা করেছেন এনজিও কর্মী আছমা খাতুন।

ঘটনাটি ঘটে সোমবার দুপুরে উপজেলার কাঁঠাল ইউনিয়নের তেঁতুলিয়া গ্রামে। পরে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার তেঁতুলিয়া গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের মেয়ে আছমা খাতুন ‘কাজ আয়নাক্ষেত গ্রাম সমিতি’ নামে স্থানীয় একটি বেসরকারি এনজিওতে কাজ করত। ক্ষুদ্র ঋণ দেয়া নিয়ে একই গ্রামের দেওয়ানিয়া বাড়ি এলাকার সিরাজের ছেলে সাব্বির আহমেদ শুভর সাথে পরিচয় ঘটে। পরিচয়ের সূত্রে এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মেয়েটির সাথে সব ধরনের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে শুভ। ছেলেকে বারবার বিয়ের কথা বললেও রাজি হচ্ছিল না সে। পরে অভিমানে ও ক্ষোভে মেয়েটি বিষপানে আত্মহত্যা করে।

এনজিও কর্মী আসমা খাতুনের বড় বোন জান্নাতুল ফেরদৌস জানান, ছেলেটির সাথে আমার বোনের দীর্ঘদিনের সম্পর্ক ছিল। গত বছরের অক্টোবরে মাসে ছেলেটি আমাদের বাড়িতে এলে আমরা বিয়ের তাগিদ দেই এবং এলাকাবাসী তাকে বিয়ে কথা বললে বিয়েতে রাজি হয় শুভ। সকালে আমার বোন বাড়ি থেকে বের হলে দুপুরে তার প্রেমিক আমাদের ফোন করে জানায় আছমা বিষপান করে ময়মনসিংহ মেডিকেলে আছে। আমরা ময়মনসিংহ মেডিকেলে আমাদের বোনের কাছে গেলে ছেলেটি আমাদের রেখে পালিয়ে যায়। কিছুক্ষণ পর আমার বোন মারা যায়। আমি এর বিচার চাই।

সর্বশেষ