শিরোনাম

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ের পথে আশরাফের বোন লিপি

সর্বশেষ আপডেটঃ ০৪:১৪:৪৭ অপরাহ্ণ - ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | ৩৫০

কিশোরগঞ্জ সদর-হোসেনপুর উপজেলা নিয়ে গঠিত কিশোরগঞ্জ-১ আসনে পুন:নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমাদানকারী তিন প্রার্থীর মধ্যে বাছাইয়ে বাদ পড়েছেন দুই প্রার্থী।

তারা হলেন, গণতন্ত্রী পার্টির প্রার্থী দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জেলা সভাপতি অ্যাডভোকেট ভূপেন্দ্র চন্দ্র ভৌমিক দোলন এবং জাতীয় পার্টির প্রার্থী জাতীয় মৎস্যজীবী পার্টির সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. মোস্তাইন বিল্লাহ। এককপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষিত হয়েছে প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ছোট বোন আওয়ামী লীগ প্রার্থী ডা. সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপির।

রোববার দুপুরে জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং অফিসারের সম্মেলন কক্ষে মনোনয়নপত্র বাছাইয় শুরু হয়। মনোনয়নপত্র বাছাই শেষে জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং অফিসার মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী দুই প্রার্থী অ্যাডভোকেট ভূপেন্দ্র চন্দ্র ভৌমিক দোলন এবং মো. মোস্তাইন বিল্লাহর মনোনয়নপত্র বাতিল এবং ডা. সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপির মনোনয়নপত্র বৈধ বলে ঘোষণা দেন।

ভাইয়ের শূন্যস্থান পূরণে সৈয়দ আশরাফের ভাই মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ সাফায়েতুল ইসলামও দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন। তবে দল থেকে বেছে নেয়া হয় তাদের বোন ও জাতীয় নেতা সৈয়দ নজরুল ইসলামের ছোট মেয়েকে।

প্রসঙ্গত, গত ৩০শে ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম থাইল্যান্ডে চিকিৎসাধীন থেকেও বিপুল ভোটের ব্যবধানে কিশোরগঞ্জ সদরের এই আসন থেকে টানা পঞ্চমবারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

কিন্তু শপথ নেয়ার আগেই গত ৩রা জানুয়ারি থাইল্যান্ডের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের মৃত্যুতে আসনটিতে আগামী ২৮শে ফেব্রুয়ারি ভোটগ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করে গত ২২শে জানুয়ারি পুন:নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

সর্বশেষ