শিরোনাম

বর্ষবরণে নৌকার বৈঠা হাতে নিয়ে ময়মনসিংহবাসীদের শুভেচ্ছা মেয়র প্রার্থী টিটু’র

সর্বশেষ আপডেটঃ ০২:০৯:৩৬ পূর্বাহ্ণ - ১৫ এপ্রিল ২০১৯ | ৬৫

মোঃ মেরাজ উদ্দিন বাপ্পী: পহেলা বৈশাখ ১৪২৬ বাংলা নতুন বছরে নৌকার বৈঠা হাতে নিয়ে ময়মনসিংহবাসীদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী মোঃ ইকরামুল হক টিটু।

 

রবিবার জয়নুল উদ্যান পার্কে ব্রহ্মপুত্র নদে নৌকায় ভেসে অভিনব কায়দায় বর্ষবরণ করলেন ইকরামুল হক টিটু। এসময় তিনি ময়মনসিংহ নগরবাসীকে বাংলা নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানান।

 

সরেজমিনে দেখা যায়, বৈশাখের লাল-সাদা পাঞ্জাবি পরে ব্রহ্মপুত্র নদে নৌবিহারে অংশ নেন ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী মোঃ ইকরামুল হক টিটু। নৌকায় ভেসে অভিনব কায়দায় পহেলা বৈশাখ ১৪২৬ বর্ষবরণ করেন তিনি।

 

পহেলা বৈশাখ রোববার সকাল সাড়ে ৮টায় শহরের মহারাজা রোড এলাকার মুকুল নিকেতন উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণ থেকে বের করা হয় জেলা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের উদ্যোগে মঙ্গল শোভাযাত্রা। নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে শেষ হয় জয়নুল উদ্যানের বৈশাখী মঞ্চে। তারপর সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের উদ্যোগে বৈশাখী মঞ্চে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

 

বৈশাখ আসে প্রতিবছর- চির নতুনের বার্তা নিয়ে। বৈশাখের সেকাল-একাল, অতীত বর্তমান সংস্কৃতির এক সুবর্ণ রেখা। প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে বৈশাখ ছুঁয়ে যায় প্রাণ। প্রজন্মের ভাবনায় বৈশাখ এক নতুন উদ্দীপনা, আপন সত্ত্বায় উদ্ভাসিত। সেই নব্বইয়ের দশক থেকে বৈশাখের প্রথম প্রভাত থেকেই মঙ্গল শোভাযাত্রা হচ্ছে সংস্কৃতির নগরী ময়মনসিংহে। রাজধানী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় এই মঙ্গল শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়ে থাকে। যশোরে এই শোভাযাত্রার শুরু হলেও শুরুর পর থেকে প্রতিবছরই এর আয়োজন করা হয় ইতিহাস-ঐতিহ্যের নগরী ময়মনসিংহেও।

 

সাম্প্রতিক বছরগুলোতেও ময়মনসিংহে বর্ষবরণ উৎসব ও মঙ্গল শোভাযাত্রা ছাড়াও মেলার আয়োজন করা হয়। আর এতে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সহযোগিতা করেন জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন এবং সিটি করপোরেশন।

 

ময়মনসিংহ নগরবাসীকে বাংলা নতুন বছরের শুভেচ্ছা ইকরামুল হক টিটু বলেন, ‘ময়মনসিংহবাসীর ইচ্ছা অনুযায়ী স্থায়ী বৈশাখী মঞ্চ তৈরি করেছি। আপনারা যদি আবার আমাকে ভোট দিয়ে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র নির্বাচিত করেন, তাহলে ময়মনসিংহের সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড বিকাশের জন্য আপনাদের প্রত্যাশা অনুযায়ী সাংস্কৃতিক পল্লী গড়ে তুলব।

সর্বশেষ