শিরোনাম

পাঁচ মাসের মাথায় ৭ সন্তানের জন্ম

সর্বশেষ আপডেটঃ ০৯:৩৪:০৬ পূর্বাহ্ণ - ১৩ এপ্রিল ২০১৯ | ৯৪

গর্ভধারণের ৫ মাসের মাথায় লক্ষ্মীপুরের একজন নারী একসঙ্গে সাত সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। জন্ম নেওয়া শিশুদের মাঝে ৪ জন ছেলে ও ৩ জন মেয়ে। নির্দিষ্ট সময়ের আগে প্রসব হওয়ায় এখনো চোখ ফোটেনি শিশুদের। মা সুস্থ থাকলেও, ঝুঁকিতে রয়েছে সন্তানেরা।

শুক্রবার (১২ এপ্রিল) রাত পৌনে ১০ টার দিকে লক্ষ্মীপুরের বেসরকারি (সিটি হসপিটাল) হাসপাতালে একসাথে ৭ সন্তানের জন্ম দেন নাজমা আক্তার (১৮)। তিনি সদর উপজেলার লাহারকান্দি গ্রামের পাটওয়ারি বাড়ির প্রবাসী মো. রাজুর স্ত্রী।

হাসপাতালের ব্যবস্থাপক ওমর ফারুক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘রাত ৯টা ২০ মিনিটের দিকে জরুরী অবস্থায় নাজমাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ২৫ মিনিট পরই তিনি ৭ সন্তানের জন্ম দেন। মা ও সন্তান সবাই বেঁচে আছে, তবে বাচ্চারা অসুস্থ’।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, মাত্র ৫ মাসের মাথায় নাজমার সন্তান জন্ম গ্রহণ করে। একসঙ্গে ৭ বাচ্চার প্রসবে বড় ধরণের ঝুঁকি ছিলো৷ তবে মা সুস্থ থাকলেও বাচ্চাগুলো ঝুঁকিতে আছে।

নাজমার মা শাহেদা বেগম বলেন, ‘গত বছর নভেম্বরের শুরুর দিকে আমার মেয়ে গর্ভধারণ করে। মার্চের প্রথমদিকে স্থানীয় একটি প্যাথলজিতে আল্ট্রাসনোগ্রাম করানো হলে ৫টি বাচ্চার অবস্থান সম্পর্কে জানতে পারি। পরে হাসপাতালে এনে বিভিন্ন সময় চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়েছি। আজ প্রসব ব্যাথা উঠলে রাতে তাকে হাসপাতাল নিয়ে আসি। ঝামেলামুক্তভাবে নাজমা ৭টি সন্তান জন্ম দিয়েছে। তবে কারো চোখ ফোটেনি’।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. আবদুল্লাহ নওশের বলেন, ‘বাচ্চাদের সুস্থ করে তোলার জন্য চিকিৎসা চলছে। তবে ঝুঁকি থেকেই যাচ্ছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদেরকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজের শিশু বিভাগে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে’।

চিকিৎসক আরো বলেন, ‘আমাদের এখানে মার্চ মাসের প্রথমদিকে প্রসূতি নাজমাকে নিয়ে আসা হয়। পরে আল্ট্রাসোনগ্রামের রিপোর্ট দেখে বিভিন্ন পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ের আগেই তার প্রসব ব্যাথা উঠে এবং তিনি ৭ সন্তানের জন্ম দেন’।

সর্বশেষ