শিরোনাম

পরান গঞ্জ ইউনিয়নকে থানা ও ২০ শয্যা হাসপাতালকে উন্নিতকরণ করার দাবি চরাঞ্চল বাসীর প্রধানমন্ত্রীর কাছে

সর্বশেষ আপডেটঃ ০৩:৪৯:০১ পূর্বাহ্ণ - ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | ১১১

ময়মনসিংহ বিভাগীয় নগরীর সদর উপজেলা ৪ নং পরান গঞ্জ ইউনিয়নের প্রচুর জনসংখ্যা যেখানে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ঘাটি। দেশ স্বাধীনের পর একমাত্র আওয়ামীলীগ ওয়ান থ্রার্ট ভোট পেয়ে থাকে এই অঞ্চল থেকে।

অথচ আওয়ামীলীগ ছাড়া এই চরাঞ্চলের নিঃগৃহিত মানুষের দুঃখ- কষ্ট আর কেউ লাগব করে না এবং কি উন্নয়ন মূলক কাজ পর্যন্ত করা হচ্ছে না বলে দাবি সদর উপজেলা ৪ নং পরান গঞ্জ ইউনিয়নবাসীর।
ইউনিয়নের ঐতিহাসিক পরান গঞ্জবাসীর উন্নয়ন মূলক কাজ ও গ্রামে নানা সমস্যা সমাধানের লক্ষে ৪নং পরান গঞ্জ ইউনিয়নকে থানা রুপান্তর ও ২০ শয্যা হাসপাতালকে উন্নিতকরণ গ্রামের বিভিন্ন সমস্যা, রাস্তা, ড্রেনেজ ব্যবস্থা সহ সকল সমস্যা সমাধানের কর্ম পরিকল্পনা গ্রহন করার জন্য বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে দাবি জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু দুস্থ ও প্রতিবন্ধী ফাউন্ডেশন ময়মনসিংহ জেলা শাখার সিনিয়র সহ-সভাপতি ও ময়মনসিংহ সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড আহবায়ক মো: মঞ্জুরুল হক।

জনগনের দাবি উল্লেখ করে এলাকার সাধারন জনগন বলেন, পরান গঞ্জ বাজারে অনেক খাস জমি আছে, সেটাতে সরকার যদি চরাঞ্চলেরর মা ও শিশুদের জন্য বঙ্গবন্ধু মা ও শিশু পরিচর্যা / সুপরামর্শ কেন্দ্র, পাশাপাশি সেই খাস জমিতে যদি শেখ রাসেলের নামানুসারে একটি কৃষি প্রশিক্ষণ কেন্দ করলে কৃষকদের ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পাবে যে চরাঞ্চল থেকে প্রতি বছর ৭-১০ কোটি টাকার রবি শস্য বিক্রি করে থাকে, আরো একটু কৃষি প্রশিক্ষণ দিতে পারলে আরো উন্নয়ন সম্ভব হবে।

মৌলিক অধিকার চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্থানীয় এলাকাবাসী দাবি জানান চিকিৎসার জন্য যে ২০ হাসপাতালটি বর্তমানে আমলাতান্ত্রিক জটিলতার জন্য জনাজীর্ন অবস্থা এটিকে দেখভাল করার সরকারী উদ্যোগ নেই, এটি কে যদি ভালভাবে পরিচালনা করা হয় তাহলে বিভাগী শহরের চাপ অনেকটা কমে যাবে। এতে চরাঞ্চল বাসী উপকৃত হবে বলে মনে করেন চরাঞ্চল বাসীর সাধারন জনগন।

বঙ্গবন্ধু দুস্থ ও প্রতিবন্ধী ফাউন্ডেশন ময়মনসিংহ জেলা শাখার সিনিয়র সহ-সভাপতি মঞ্জুরুল হক চরাঞ্চল বাসীর পক্ষ থেকে প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আকুল আবেদন করেন, খাস ভূমি রক্ষা করে সরকারী উদ্যোগে কৃষি প্রশিক্ষন কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা এবং মা ও শিশু মৃত্যু হার কমানোর জন্য একটি শেখ রাসেল মাওশিশু পরিচর্যা কেন্দ্র স্থপন সহ পরান গঞ্জ সদর হাসপাতালকে, সুচিকিৎসা দেওয়ার মত করে চালু করতে। তিনি একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে অতি জুরুরি পদক্ষেপ নেওয়ার আকুল আবেদন করেন। তাতে আশপাশ মিলিয়ে অর্থাৎ ১০ কিলো এরিয়ার জনগন প্রায় ২/২.৫ লক্ষ মানুষ চিকিৎসা সেবা পাবে বলে মনে করেন তিনি।

 

সর্বশেষ