শিরোনাম

নদী দখলকারীরা নির্বাচনে অযোগ্য, পাবে না ঋণ : হাইকোর্ট

সর্বশেষ আপডেটঃ ০৪:০৭:৫৪ অপরাহ্ণ - ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | ২৬

নদ-নদী দখলকারীরা সব ধরনের নির্বাচনে অযোগ্য বলে বিবেচিত হবে বলে রায় দিয়েছেন উচ্চ আদালত। একই সাথে তার ঋণ গ্রহণেও অযোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। এই বিষয়ে নির্বাচন কমিশন ও বাংলাদেশ ব্যাংককে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

রবিবার তুরাগ নদী রক্ষায় একটি রিট মামলার বিচার শেষে দেওয়া রায়ে এ ঘোষণা দেন বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের হাইকোর্ট বেঞ্চ। এই রায়ে তুরাগ নদীকে জীবন্ত সত্বা হিসেবে ঘোষণা করেছেন আদালত।

রায়ে জলাশয় দখলকারী ও অবৈধ স্থাপনা নির্মাণকারীদের তালিকা প্রকাশের নির্দেশ দেয়া হয়। স্যাটেলাইটের মাধ্যমে দেশের সব নদ-নদী, খাল-বিল ও জলাশয়ের ডিজিটাল ডেটাবেইজ তৈরি করতে বলা হয়েছে। প্রতিরোধমূলক নির্দেশনায় আদালত দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে দুই মাসে এক দিন এক ঘণ্টা করে নদী দূষণের ওপর সচেতনতামূলক ক্লাসের ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন। বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এই রায়ে নদী রক্ষা কমিশনকে দেশের সব নদ-নদী, খাল-বিল ও জলাশয়কে রক্ষার জন্য জাতীয় আইনগত অভিভাবক ঘোষণা করেছেন। এছাড়া নদী রক্ষা কমিশন যাতে নদ-নদী, খাল-বিল ও জলাশয় রক্ষায় কার্যকর ভূমিকা নিতে পারে, সেজন্য সরকারকে আইন সংশোধন করে কঠিন শাস্তির বিধান রাখতে বলা হয়েছে।

সর্বশেষ