শিরোনাম

“ধন্যবাদ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী- রকিব”

সর্বশেষ আপডেটঃ ১০:১৩:৪০ অপরাহ্ণ - ০৯ জুন ২০১৮ | ৬০

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রকিবুল ইসলাম রকিবের ফেসবুক টাইমলাইনে প্রকাশিত স্ট্যাটাসে পোস্টটি হুবহু তুলে ধরা হল-

“আমি আজ রাজনৈতিক হয়ে নই- জনতার একজন হয়ে বলছি”
দেশে চলমান মাদক নির্মূল অভিযানে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী যে ভূমিকা পালন করছেন তা সত্যিই প্রশংসার দাবী রাখে।

আমি ব্যক্তি #রকিব
আমার ছাত্র রাজনীতি জীবনের শুরু থেকে অদ্যবদি যে সকল লড়ায় সংগ্রাম আন্দোলন করেছি তার বৃহৎ অংশটাই করতে হয়েছে এই মাদকের বিরুদ্ধে।

আর তারই ফলশ্রুতিতে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের মানসিক নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছে এবং এখন হয়ে চলছি এই মাদক বন্ধ করতে না পেরে….!
দীর্ঘদিন যাবত খুঁজেছি মাদক ব্যবসায় বন্ধ করার বৃথা চেষ্টার বিভিন্ন পথ/কৌশল, শেষে এই একটা পথ ছাড়া আমি আর কোন পথ দেখতে পাইনাই। তা হলো দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশে আজকের এই মাদক বিরোধী অভিযান।

➡তবে হ্যাঁ অবশ্যই এই দিকটা বিশেষ ভাবে খেয়াল রাখতে হবে -প্রতিটা অপারেশনের আগে নিশ্চিত হতে হবে যেন
কোন ভাবেই ভিন্ন কোন বিষয়ের প্রতিহিংসার প্রতিশোধ হয়ে যায়, ও কেও যাতে প্রশ্ন তুলতে না পারে।

এখন আসি আসল কথায়, আজকে যারা এই অভিযান নিয়ে গলাবাজী করছেন, কুচক্রীরা সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ইস্যু করছেন যেমন- সরকার নির্বিচারে মানুষ হত্যা করছে, সরকার অন্যায় করতাছে ব্লাব ব্লাব ইত্যাদি ইত্যাদি।
আমি তাদেরকে বলছি, আজ যদি এমন অভিযান না হতো তবুও আপনারা সরকারের বিরুদ্ধে ইস্যু সৃষ্টি করতেন।এটাই হচ্ছে আপনাদের নৈতিকতা!

➡আপনারা আজ যারা গলাবাজি করছেন তাদের কাছে আমার কিছু প্রশ্নঃ

◼আপনাদের কাছে কি এমন কোন পদ্ধতি আছে যেই পথে হেটে দেশের মাদক ব্যবসায়/সেবন বন্ধ হবে ?
যদি থাকে তবে দেশের স্বার্থে সমালোচনা বন্ধ করে সরকারকে সহযোগিতা করুন।
◼পুলিশ ধরলে বড়জোড় সাত দিন মাদক ব্যবসায়ীদের গনায় থাকে অষ্টম দিন-
পরে তারাই আতংকিত হয়ে যায় যে বা যারা মাদকের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেছিল?
◼আপনি কার জন্য আজ গলাবাজি করতাছেন একজন হত্যাকারির জন্য?
একজন খুনি ১,২,৩ তিনটি খুন করতে পারে কিন্তু একজন মাদক ব্যবসায়ী প্রতিদিন কত শত মানুষের তাজা প্রান হত্যা করছে?
তাদের জন্য?
◼কতশত বাবা, মায়ের স্বপ্ন হত্যা করছে- তাদের জন্য ?
◼ছিনতাই থেকে শুরু করে মাদকের তাড়নায় সমাজে কতশত নতুন অপরাধ জন্ম দিচ্ছে- তাদের জন্য ?
◼নিরাপদ মাদক ব্যাবসার কেন্দ্র হিসেবে পবিত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে করছে অপবিত্র! ও
ভবিষ্যত আলোর দিশারীদের মাদকের মরণ ছোবলের অন্ধকারের মৃত্যুর মিছিলের দিকে ঠেলে দিচ্ছে- তাদের জন্য ?
◼যারা কালকে আপনার এক মাত্র আদরের বোনের জন্য করা বিয়ের বাজার/ বহু কষ্টের জমানো অর্থ মাদকের তারনায় যে ছিনতাই করে নিয়ে যাবে- তাদের জন্য ?
◼কালকে আপনারা প্রানের চেয়ে প্রিয় সন্তান কে যে মাদক নামক বিষ দিয়ে হত্যা করবে- তাদের জন্য ?
◼একজন স্বপ্নবাজ যুবক টিউশনি কিংবা পার্ট টাইম জব করে সারা মাস পরিশ্রম করে আর অপেক্ষার প্রহর গুনে;
কখন সে বেতন পাবে; পরে তা দিয়ে অসুস্থ মায়ের জন্য ঔষধ আর বোনে পরীক্ষার ফিস দিবে-!
কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাস !
বেতন অর্থ নিয়ে আসার সময় পথে মাদকে আক্রান্ত অতপেতে থাকা সেই হায়নার ছুড়িকাঘাতে আহত কিংবা অতঃপর নিহত হয়ে পরে থাকা সেই লাশের অভিশপ্ত হন্তারকের জন্য ?
◼অনেক সন্তান তার পিতা-মাতার স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে যখন শহরে আসে তখন ঐ শহরের মাদকাসক্ত ছেলে গুলোর দ্বারা গ্রামের সহজ সরল শিক্ষার্থীরা যে পরিমান হয়রানীর শিকার হয়- তাদের জন্য ?
◼একজন সন্ত্রাসের, সহস্র হত্যার
মূল হোতা দেশদ্রোহীর জন্য?
◼যার ইজ্জত যায় না ধোইলে আর খইলত যাবে না মরলেও- তাদের জন্য ?
◼আপনি আজ যে অভিযান প্রসঙ্গে গলাবাজি করছেন তা কি হাজার হাজার তরুনের প্রাণ হত্যাকারীর পক্ষ নিচ্ছে কিনা- সে দিকে কি খেয়াল করছেন?

আজকে যারা কথিত ‘সুশিল’ তারাই আজকের সমাজ ধংসের অন্যতম মূল নিয়ামক, ওই সব সুশিলদের জন্যই এতোদিন মাদকের বিরুদ্ধে বারবার শ্লোগান ধরা,মাদক বিরোধী বিভিন্ন সভা, সেমিনার, মানববন্ধন, রেলি এমনকি নিজেও একজন সুশিক্ষিত নাগরিক হিসাবে সাধারন ছাত্র জনতাকে সাথে নিয়ে একাধিক বার আইন হাতে তুলে নিয়েও পারিনি তা রোধ করতে।
ছাড়পোকার মতন বিস্তার করা মাদকের ভয়াবহতা।

আমি মনে করি, যারা মাদক ব্যবসায়ী তারা ১০ খুনের হত্যাকারীর চেয়ে অধিকতর বড় অপরাধী। এটা আমি মনে প্রাণে বিশ্বাস ও করি।

➡আমার বিনীত অনুরোধঃ
দেশ সেবার মহান ব্রত নিয়ে যেই সব আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যদের অনৈতিক ও হারাম কর্মকান্ডের করনে মাদক ব্যবসায়িরা মদত পুষ্ট হয় তাদেরও পরিনাম যেন মাদক ব্যবসায়ীদের মতোন এক ও অভিন্ন হয়।

স্বাধীন দেশের স্বাধীন নাগরিক হিসেবে আজকে দেশের চলমান মাদক বিরোধী অভিযানে একটাই হোক আমাদের মূল আওয়াজ।

যেহেতু মাদক নির্মূলে সরকার এমন একটি কর্মসূচী গ্রহণ করেছেন তাতে আমরা বিচলিত না হয়ে আসুন মাদকমুক্ত দেশ গড়ার প্রত্যয়ে সকলেই অতিতের ন্যায় দেশরত্ন শেখ হাসিনা সরকারের প্রতি আস্থা রাখি।

#বিশেষ_ভাবে বলছি আপাতত আমরা সামাজিক মাধ্যমে বা চা চক্রের আড্ডাবাজিতে যেন নিজের বিবেক বিসর্জন দিয়ে আবেগকে প্রাধান্য না দিই।
আমি মনেকরি প্রত্যেকের স্থান থেকে এটাও এক ধরনের মাদকের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ।

◾আমি আবারো সাধুবাদ জানাচ্ছি মাদকের বিরুদ্ধে প্রশাসনের এই সাহসী অভিযান পরিচালনার জন্য।

পরিশেষে বলি, সে সব পুত পবিত্র, আত্মস্বীকৃত মহান ব্যক্তিদের,
যারা সত্যকে স্বীকার করতে ভয় পান! আপনারা লুকিয়ে হলেও মনে মনে স্বীকার করবেন আর বলবেন “#ধন্যবাদ_মাননীয়_প্রধানমন্ত্রী”।

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর