শিরোনাম

দ্বিতীয় স্ত্রীর বাড়ির পরিতাক্ত পুকুর থেকে নিখোঁজ স্বামীর লাশ উদ্ধার

সর্বশেষ আপডেটঃ ০৫:০৬:০৯ অপরাহ্ণ - ১৩ জুন ২০১৯ | ৪৩

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহের আকুয়া হাবুন ব্যপারী মোড় এলাকার পরিতাক্ত আবর্জনা স্তুপ পুকুর থেকে নিখোঁজ শফিকুল ইসলাম শপুর (২৫) গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

 

সে নগরীর বাশবাড়ি কলোনির সুরুজ মিয়ার ছেলে। দ্বিতীয় স্ত্রী আফরোজা শেখ ইতির বাড়ি সংলগ্ন পচা পুকুরের কচুরিপানার নিচ থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

 

নিখোঁজ হওয়ার ৩ দিন পর বৃহস্পতিবার ১৩ জুন সকাল সাড়ে এগারোটার দিকে শফিকুল ইসালাম শপুর লাশ উদ্ধার করেছে কোতোয়ালী থানা পুলিশ।

এর আগে গত ১১ জুন শফিকুল ইসলাম শপুর নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করে কোতোয়ালী থানায় জিডি করেন দ্বিতীয় স্ত্রী আফরোজা শেখ ইতি। জিডি নং ৬৭৬।

জিডি সূত্রে জানা যায়, ১০ জুন সোমবার অনুমানিক ৭টায় একজনের কাছে পাওনা টাকা উঠানোর জন্য বাসা থেকে বের হয়ে যায় শপু। সেদিন সারা রাত তার ব্যবহৃত তিনটি মোবাইল ফোন খোলা ছিলো, কিন্তু ফোন রিসিভ হয়নি। পর দিন মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায় এবং খোঁজাখুজি করে তাকে পাওয়া যাচ্ছে না উল্লেখ্য করা হয় জিডিতে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, শফিকুল ইসলাম শপুর প্রথম স্ত্রী মাহমুদা (২০) এর সাথে গত ৪ মাস আগে বিচ্ছেদ হয়ে যায়। প্রথম স্ত্রীর ঘরে ৪ বছরের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। বর্তমানে শপু দ্বিতীয় স্ত্রী আকুয়ার মৃত আজাদ শেখ এর সৎ বোন আফরোজা শেখ ইতিকে বিয়ে করার পর তার সঙ্গেই বসবাস করতেন।

 

এ বিষয়ে কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি তদন্ত মনসুর আহমেদ বলেন, আকুয়া হাবুন ব্যপারী মোড় এলাকায় নিখোঁজ যুবক শফিকুল ইসলাম শপুর গলিত লাশ পাওয়া গেছে। তাকে অনুমানিক ৩/৪ দিন আগে হত্যা করা হয়েছে। লাশের গায়ে কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি।

 

তিনি বলেন, মামলা প্রক্রিয়াধিন। ঘটনা সত্যতা উদঘাটনে তদন্ত চলছে। হত্যাকান্ডের সাথে যেই জড়িত থাক, কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

সর্বশেষ