শিরোনাম

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশের ভূয়সী প্রশংসা

সর্বশেষ আপডেটঃ ০২:১২:০০ অপরাহ্ণ - ১৬ জানুয়ারি ২০১৯ | ৮৯

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষায় নিয়োজিত বাংলাদেশি সেনাদের ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেছেন সংস্থাটির শান্তিরক্ষা কার্যক্রম বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল জিন পিয়ের ল্যাক্রিক্স।

নেদারল্যান্ডস ও রুয়ান্ডার যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত হেগে দুই দিনব্যাপী ‘শান্তি রক্ষায় নিয়োজিত প্রস্তুতি মূলক সম্মেলনে’ শান্তি মিশনে বাংলাদেশের ভূমিকা প্রসঙ্গে তিনি এমন প্রশংসা করেন। মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) হেগের বাংলাদেশ দূতাবাসের বরাতে এক প্রতিবেদনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে দেশটির বার্তা সংস্থা ইউএনবি।

সম্প্রতি বাংলাদেশ সফরের কথা স্মরণ করে আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল ল্যাক্রিক্স বলছেন, ‘সেনা ও পুলিশ পাঠিয়ে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশ গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে।’

প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশের গাজীপুরের রাজেন্দ্র পুর সেনানিবাসে অবস্থিত শান্তিরক্ষা প্রশিক্ষণ কেন্দ্র বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব পিস সাপোর্ট অপারেশন ট্রেনিংয়ে (বিপসট) মানসম্মত প্রশিক্ষণের প্রশংসাও করেন ল্যাক্রিক্স। তাছাড়া বিভিন্ন দেশের বেসামরিক জনগণের নিরাপত্তার ক্ষেত্রেও তিনি আরও বেশি মনোযোগ প্রদানের ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন।

এর আগে ডাচ পররাষ্ট্রমন্ত্রী স্টেফ ব্লক, দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী আঙ্ক বিজলিভেল্ড এবং জিন পিয়ারি ক্যারাব্যারাঙ্গা, আফ্রিকান ইউনিয়নের শান্তি ও নিরাপত্তা বিষয়ক কমিশনার, ন্যাদারল্যান্ডস ও স্মেইল চেরাগিতে নিযুক্ত রুয়ান্ডার রাষ্ট্রদূত যৌথভাবে এ সম্মেলনের উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

এবারের শান্তিরক্ষা বিষয়ক প্রস্তুতি মূলক এ সম্মেলনে বাংলাদেশসহ বিশ্বের মোট ৭০টির মতো দেশ অংশগ্রহণ করেছে। যেখানে বাংলাদেশের প্রতিনিধি দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন নেদারল্যান্ডসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শেখ মোহাম্মাদ বেলাল।

উল্লেখ্য, সম্মেলনে রাষ্ট্রদূত বেলাল জাতিসংঘ শান্তিরক্ষায় বাংলাদেশের অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেছেন। তিনি বিশ্ব শান্তি ও স্থিতিশীলতা জোরদারে জাতিসংঘের আহ্বানের প্রতিক্রিয়ায় সেনা ও পুলিশ পাঠিয়ে অবদান রাখার বিষয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ব্যক্তিগতভাবে করা অঙ্গীকারের কথাও পুনর্ব্যক্ত করেন।

সর্বশেষ