শিরোনাম

অসুস্থ রাজনীতি করলে মনোনয়ন পাবেন না-ওবায়দুল কাদের

সর্বশেষ আপডেটঃ ১০:৩৪:১৯ পূর্বাহ্ণ - ১২ জুলাই ২০১৭ | ১২১

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, যাদের ‘ইমেজ ড্যামেজ’ হয়ে গেছে, যারা ‘উইনেবল ক্যান্ডিডেট’ না, জনগণের কাছে যাদের গ্রহণযোগ্যতা নেই, আগামী নির্বাচনে তাদের মনোনয়ন দেওয়া হবে না। সারা দেশে বেশ কয়েকটি জরিপ হচ্ছে। এসব জনমত জরিপ একত্র করে এবং দলের তৃণমূলের মতামত নিয়ে জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিকেই মনোনয়ন দেওয়া হবে। তিনি দলের নেতা-কর্মীদের সতর্ক করে দিয়ে বলেন, নির্বাচন করার আকাঙ্ক্ষা অনেকেরই থাকতে পারে। কিন্তু এই প্রতিযোগিতা যেন ঘরের মধ্যে ঘর করার, মারামারির, হানাহানির, রক্তারক্তির প্রতিযোগিতা না হয়। এরকম প্রতিযোগিতা, অসুস্থ রাজনীতি যারা করবে, আগামী নির্বাচনে তাদের মনোনয়ন পেতে হবে না। গতকাল দুপুরে যশোর ঈদগাহ ময়দানে জেলা ছাত্রলীগের ১৭তম সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুল ইসলাম রিয়াদের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান, সদস্য এসএম কামাল হোসেন, প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী সাইফুজ্জামান শিখর, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বদিউজ্জামান সোহাগ, সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন, মনিরুল ইসলাম, কাজী নাবিল আহমেদ, রনজিৎ কুমার রায় ও স্বপন ভট্টাচার্য, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুজ্জামান পিকুল, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, সাধারণ সম্পাদক সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন চাকলাদার, যশোর পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু, বেনাপোলের পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন। সম্মেলন উদ্বোধন করেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও প্রধান বক্তা ছিলেন সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন। সভা পরিচালনা করেন জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বিপুল। বিএনপির আন্দোলনের হুমকিকে আষাঢ়ের তর্জন-গর্জন উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, একটি দল আছে, তারা ৮ বছরে ৮ দিনও রাজপথে নামতে পারেনি। তারা বলে, ঈদের পর মাঠে নামবে। ৮ বছরে ১৭টা ঈদ চলে গেছে। শেষ ঈদের পরও ১৪ দিন চলে গেছে। কিন্তু মরা গাঙে কি জোয়ার এসেছে? আমাদের রাজনীতির রোল মডেল বঙ্গবন্ধু, উন্নয়নের রোল মডেল শেখ হাসিনা, আর ডিজিটাল বাংলাদেশের রোল মডেল সজীব ওয়াজেদ জয়। ছাত্ররাজনীতিকে জনগণের কাছে, সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে আকর্ষণীয় করতে হবে। আর সেটা করতে হবে মেধা, যোগ্যতা, পড়াশোনা আর আচার-আচরণ দিয়ে। ছাত্রলীগ কর্মীদের বলব, বঙ্গবন্ধু আমাদের আদর্শ, শেখ হাসিনা আমাদের নেতা, এটা ছাত্রলীগকে মনে রাখতে হবে। ওবায়দুল কাদের বলেন, ছাত্রলীগের কর্মকাণ্ডে আওয়ামী লীগের যে দায়িত্ব সে দায়িত্ব পালন করতে হবে। সংগঠন করার জন্য তাদের যা প্রয়োজন নেতাদের সেটা দিতে হবে। ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের তিনি বলেন, তোমরা এখন থেকে কাজ করবে নৌকার পক্ষে। তোমাদের প্রার্থী হবে নৌকা। মন্ত্রী বলেন, মেধাবী, যোগ্য ও শিক্ষিত লোকেরা রাজনীতিতে না এলে রাজনীতির নেতৃত্ব চলে যাবে অশিক্ষিতদের হাতে। অযোগ্য লোকেরা এমপি হবে, মন্ত্রী হবে।

 

janatarpratidin.com / Md. Bappy / 12 July 2017

 

সর্বশেষ